সোমবার, ২৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:২৭ পূর্বাহ্ন

মাদ্রাসা প্রিন্সিপালের দূর্ণীতি, অনিয়ম ও স্বেচ্ছাচারিতার প্রতিবাদে মানববন্ধন

বর্তমান সংবাদ ডেস্ক : / ৫০৩ বার পঠিত
প্রকাশের সময় : শনিবার, ১০ জুন, ২০২৩, ১২:৪৬ অপরাহ্ণ

 

নিজস্ব প্রতিবেদক,  সাভার : ঢাকার আশুলিয়ার কোনাপাড়া টেংগুরি দারুল উলুম ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার প্রিন্সিপাল হাফেজ মজিবুর রহমানের অনিয়ম, দূর্ণীতি ও স্বেচ্ছাচারীতার প্রতিবাদে মানব বন্ধন করেছে এলাকাবাসি।

শনিবার সকাল ১০টায় নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের পাশে বিকেএসপির সামনে এলাকাবাসির ব্যানারে এ মানব বন্ধন কর্মসূচি পালন করা হয়।

মানব বন্ধনে কোনাপাড়া টেংগুরি দারুল উলুম ক্বওমী মাদ্রাসা ও এতিমখানার সিনিয়র সহ-সভাপতি সুমন মন্ডল বলেন, মাদ্রাসার বর্তমান প্রিন্সিপাল দাবীদার হাফেজ মজিবুর রহমান নিয়োগ প্রাপ্ত কোন প্রিন্সিপাল না। সে অনিয়ম করে, গায়ের জোড়ে এবং স্বেচ্ছাচারিতার মাধ্যমে প্রিন্সিপালের দায়িত্ব পালন করে যাচ্ছে। কোন আইনের তোয়াক্কা না করে যাকে ইচ্ছা মাদ্রাসায় রাখেন, যাকে ইচ্ছা তারিয়ে দেন। বেশ কিছুদিন আগেও ওই মাদ্রাসার এক শিক্ষক অন্য একটি মাসজিদে নামাজ পড়ানোর কারণে বের করে দেন।

তিনি আরো বলেন, এই প্রিন্সিপাল দাবীদার মাদ্রাসার আয় ব্যয়ের কোন হিসাব দেন না। কমিটির কয়েকজনকে হাত করে তিনি বহাল তবিয়তে রয়েছেন। একটি লুঙ্গী পড়ে আসা এই প্রিন্সিপাল এখন মাদ্রাসায় আসা যাকাত-ফেতরার টাকা আত্মসাৎ করে কয়েকটা বাড়ির মালিক হয়ে কোটিপতি বনে গেছেন। অবিলম্বে এই প্রিন্সিপাল দাবীদার মুজিবুরের অপসারণ চান তিনি।

মানববন্ধনে এলাকাবাসি বলেন, এই মাদ্রাসাটি ১৯৮৪ সালে স্থানীয়দের সহায়তায় প্রতিষ্ঠিত হয়। ২০০২ সালে মজিবুর রহমান হাফেজ হিসেবে এখানে যোগদান করে। যোগদান করার পর থেকে যতজন প্রিন্সিপাল নিয়োগ দেয়া হয়েছিল তিনি ষড়যন্ত্র করে সকলকে বের করে দিয়ে নিজে প্রিন্সিপালের পদ দখল করেছেন। প্রিন্সিপাল হতে যে যোগ্যতার প্রয়োজন তাও তার নেই। অবিলম্বে তার অপসারণ দাবী করেন বক্তরা।

মানব বন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, কোনাপাড়া টেংগুরি এলাকার মো: সফি উদ্দিন, হাজী মো: জালাল উদ্দিন, মো: কামাল উদ্দিন, শিমুলিয়া ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড যুবলীগের সাধারন সম্পাদক মো: সফিকুল ইসলাম, মোঃ রাজিব হোসেন, হুমায়ুন কবির, দীন ইসলাম প্রমুখ সহ এলাকাবাসি।

Facebook Comments Box


এই ক্যাটাগরির আরো খবর
এক ক্লিকে বিভাগের খবর